আজ আমরা রেজিস্টরের সিরিজ ও প্যারালাল সংযোগ গুলো দেখবো।

প্রথমেই আমাদের জানতে হবে ওহমের সূত্রঃ

***ওহমের সূত্রঃ নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় কোনো পরিবাহীর মধ্য দিয়ে যে পরিমান কারেন্ট প্রবাহিত হয় তা ঐ পরিবাহীর দুই প্রান্তের বিভব পার্থক্যের সমানুপাতিক এবং উক্ত পরিবাহীর মধ্যবর্তী রোধ (রেজিস্ট্যান্স) এর ব্যাস্তানুপতিক।

গানিতিক ভাবে প্রকাশ করলে দাড়াবে, V=IR

এখানে, V= প্রয়োগকৃত ভোল্টেজ, I= কারেন্ট, R= রোধ বা রেজিস্ট্যান্স।

চলুন তাহলে আমরা একটা ছোট অংক করে আসি। তাহলে কিছুটা হলেও পরিস্কার ধারনা পাওয়া যাবে।

এভাবে আমরা ওহমের সূত্রের সাহায্য কারেন্ট, ভোল্টেজ এবং রোধ এর মধ্যে সম্পর্ক নির্ণয় করতে পারব।

চলুন তাহলে এবার আমরা রোধের সিরিজ সংযোগ দেখে নিই।

অর্থাৎ মোট রোধ বের করতে হলে সিরিজ সার্কিট এর সবগুলো রোধ এর মান যোগ করতে হবে।

যদি 470 ওহম এবং 330 ওহম মানের দুটি রোধ সিরিজে সংযোগ করা হয় তবে মোট/সমতুল্য রেজিস্ট্যান্স হবে 470+330=800 ওহম।

অর্থাৎ মোট রোধ বের করতে হলে সিরিজ সার্কিট এর সবগুলো রোধ এর মান যোগ করতে হবে।

যদি 470 ওহম এবং 330 ওহম মানের দুটি রোধ সিরিজে সংযোগ করা হয় তবে মোট/সমতুল্য রেজিস্ট্যান্স হবে 470+330=800 ওহম।চলুন প্যারালালে সংযুক্ত রেজিস্ট্যান্স এর একটা অংক করি।

অর্থাৎ চিত্রে প্রদত্ত সার্কিটের মোট কারেন্ট হবে 5.83 এম্পিয়ার।

আশা করি সবাই সিরিজ ও প্যারালালে সংযুক্ত রোধের মান বের করতে পারবেন। আজ এ পর্যন্তই। বুঝতে সমস্যা হলে টিউমেন্ট করে জানাবেন। আগামী পর্বে আমরা ক্যাপাসিটর সম্পর্কে জানবো এবং এজাতীয় গানিতিক সমস্যা সমাধান করব। সেই পর্যন্ত সবাই ভালো থাকবেন। কারো কোনো প্রশ্ন থাকলে টিউমেন্ট বক্সে জানাবেন। আমি একজন ছাত্র আমি সাধ্যমত সকল বিষয় সহজ ভাবে উপস্থাপন করার চেষ্টা করব। ভাল থাকেবেন সবাই।